• A
  • A
  • A
রাজ্যে গণতন্ত্রের গণহত্যা হয়েছে, বলছেন বুদ্ধিজীবীরা

কলকাতা, ১৬ মে : রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে কোথাও ব্যালট বক্স ছিনতাই করে ফেলে দেওয়া হয়েছিল পুকুরে। আবার কোথাও পোড়ানো হয়েছিল ব্যালট পেপার। একাধিক জায়গায় রক্তাক্ত হয়েছে শাসক-বিরোধী উভয় পক্ষের কর্মী ও সমর্থকরা। মৃত্যুর সংখ্যা ২৩। এনিয়ে আজ প্রতিবাদে সামিল হন শহরের বুদ্ধিজীবীরা। লোকসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে আজ এক সাংবাদিক বৈঠক করেন তাঁরা। সেখানে তাঁরা রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তীব্র সমালোচনা করেন।

শুনুন বুদ্ধিজীবীদের বক্তব্য


সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন নাট্যব্যক্তিত্ব কৌশিক সেন, রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত, অভিনেতা বাদশা মৈত্র, কবি মন্দাক্রান্তা সেন, আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য ও সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়। সাংবাদিক বৈঠকের আয়োজন করেছিল “সেভ ডেমক্রেসি” সংস্থা। সংস্থার সম্পাদক চঞ্চল চক্রবর্তীও উপস্থিত ছিলেন।


সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “এই যে নির্বাচন হয়ে গেল তা আমরা প্রহসন বলে মনে করি। আমাদের দেশ গণতন্ত্রের উপর দাঁড়িয়ে আছে। আমাদের এখানেও যে গণতন্ত্র রয়েছে তা মজবুত করার বদলে তাকে সমাধিস্ত করা হয়েছে। একটা নির্বাচন যা গ্রামের মানুষের উন্নয়নের জন্য, সেই নির্বাচনে ২৩ জন মানুষ মারা গিয়েছে। নির্বাচন মানে যুদ্ধ নয়।”

রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত বলেন, “এখানে আসার আগে আমার কাছে ফোন এসেছিল। জানতে চাওয়া হয়েছিল যে, এখানে যোগ দেব কি না তা নিয়ে। আমি তাঁকে বলি আমি কথা দিয়েছি এখানে আসব। শাসকদল অবগত হয়েছে যে একটা হাওয়া উঠেছে। তাতেই বোঝা যাচ্ছে যা ইচ্ছে করা যাবে না।”


কৌশিক সেন বলেন, “কবি শঙ্খ ঘোষকে যেভাবে আক্রমণ করা হয়েছে তার প্রতিবাদ করার জন্যই আমরা এখানে এসেছি। তবে রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচন যেভাবে হয়েছে তা নিয়ে আমার আলোচনায় আপত্তি নেই।”

বাদশা মৈত্র বলেন, “কবি শঙ্খ ঘোষকে যেভাবে আক্রমণ হয়েছে তার আমি তীব্র নিন্দা করি। আগামীতেও যখন এই ধরণের ঘটনা ঘটবে তখন আমি প্রতিবাদ করব।”

মন্দাক্রান্তা সেন বলেন, “গণতন্ত্রকে গণহত্যা করা হল। এটা কাম্য ছিল না। এটা প্রহসনের থেকে বেশি।”

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES