• A
  • A
  • A
সিংভির মনোনয়ন পেশে গরহাজির অধীর চৌধুরি

কলকাতা, ১২ মার্চ : রাজ্যসভা আসনে দলীয় প্রার্থী অভিষেক মনু সিংভির মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় অনুপস্থিত রইলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি। যদিও বিরোধী দলনেতা আবুল মান্নানের ঘরে উপস্থিত ছিলেন তিনি। সেই সময়ে সাংবাদিকদের অনুরোধে যখন অন্য কংগ্রেস নেতারা জয়সূচক "ভি" চিহ্ন দেখাচ্ছেন তখন অধীর বলে উঠেন “ভি” দেখানোর কী আছে? তার তাতেই কংগ্রেস পরিষদীয় দলের মধ্যে উঠেছে নানা প্রশ্ন।


আজ বিধানসভার সচিবের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তৃণমূল সমর্থিত কংগ্রেস প্রার্থী অভিষেক মনু সিংভি। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে মনোনয়নপত্র জমা দেন তৃণমূলের ৪ প্রার্থী নাদিমুল হক, শুভাশিস চক্রবর্তী, আবির বিশ্বাস ও শান্তনু সেন। এছাড়া মনোনয়নপত্র জমা দেন বাম প্রার্থী রবীন দেবও। তাঁর সঙ্গে ছিলেন সুজন চক্রবর্তী।


কংগ্রেস প্রার্থীকে সমর্থনের কথা আগেই জানিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সমীকরণ মেনে পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের চার রাজ্যসভা প্রার্থী আজ সিংভির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। যদিও সেই সময়ও সেখানে ছিলেন না অধীর চৌধুরি। সূত্রের খবর, অধীরবাবুকে জানানো হয় তৃণমূল প্রার্থীরা সৌজন্য বিনিময়ের জন্য আসতে পারেন বিরোধী দলনেতার ঘরে। সিংভির মনোনয়নপত্র পেশের পরপরেই বিধানসভা ছাড়েন অধীরবাবু।

কংগ্রেস সূত্রে আরও খবর, গতবার ক্রস ভোটিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল। এবার তাই কোনও দায়িত্ব নিজের হাতে রাখতে চাইছেন না বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান। এবিষয়ে অধীর চৌধুরিকে না কী তিনি ফোন করে কংগ্রেস হাইকমান্ডের সঙ্গে কথা বলতে বলেছেন যাতে ভোট দেওয়ার সময় দলের তরফে পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হয়।

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর সিংভি বলেন, “এই মুহূর্তে সবার আগে উচিত সাম্প্রদায়িক শক্তি BJP-কে আটকানোর জন্য ভোট ভাগাভাগি হতে না দেওয়া।” তৃতীয় ফ্রন্ট কংগ্রেস ছাড়া সম্ভব কী না সেই প্রশ্নের উত্তরে সিংভি বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে এমন অনেক আসন আছে যেখানে ২০-২২ শতাংশ ভোট পেয়েও BJP জিতে যেতে পারে। তাই আমরা সেই চেষ্টাই করবো যেন বিরোধী ভোট ভাগ না হয়।”

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES