• A
  • A
  • A
শিবলিঙ্গের বদলে পূজিত মৃত সাধু !

আলিপুরদুয়ার, ১৪ ফেব্রুয়ারি : মৃত সাধুর পুজো চলল দিনভর। ভক্তরা শিবলিঙ্গের বদলে ভক্তিভরে করলেন মরদেহের পুজো। ঘটনাটি আলিপুরদুয়ারের ভারত-ভুটান সীমান্তের ফাঁসখাওয়া পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত নুরপুর গ্রামের।

ধাম সদস্যের বক্তব্য


গতরাতে নুরপুর ধামে শিব লিঙ্গের পুজো করতে বসেন শতবর্ষ পেরোনো এক সাধু। নাম রুদ্র গিরি। পুজো করতে করতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। অন্যরা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তিনি আপত্তি জানান। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয়। গতকাল সন্ধ্যা থেকে আজ পর্যন্ত সাধুর মরদেহ দাহ করা হয়নি। মরদেহের সামনে বসেই চলছে পুজোপাঠ। শিবভক্তদের বিশ্বাস, মৃত সাধু স্বয়ং শিব ঠাকুর। তাই, পুজো করার সময় তিনি দেহত্যাগ করেছেন।


২০০৮ সালের ২৯ অক্টোবর নুরপুর ধামের প্রতিষ্ঠা হয়। বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের এক আধিকারিক স্বপ্ন দেখে এই ধাম প্রতিষ্ঠা করেন। ধাম সংলগ্ন ফাঁসখাওয়া নদী থেকে শিব লিঙ্গ পান। তা ধামে প্রতিষ্ঠা করেন। সেসময় নেপাল থেকে এসে এই ধামের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন রুদ্র। স্থানীয়দের দাবি, রুদ্র গিরির বয়স ১২০ পার করেছে।

এদিকে, সাধুর মৃতদেহের সামনে পুজো প্রসঙ্গে গোপাল বোস নামে এক ধাম সদস্য বলেন, “উনি দেহত্যাগ করেছেন। তবে, ভিতরের শিব আত্মাকে আমরা সবাই পুজো করছি। ভক্তদের শিব-দর্শন বন্ধ হলে ওঁর দেহ দাহ করা হবে। যেভাবে শিব লিঙ্গ পুজো করা হয় সেভাবেই সাধু মহারাজের পুজো হচ্ছে।”

এসব শুনে আলিপুরদুয়ার বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্য দেবীপ্রসাদ চক্রবর্তী বলেন, “পুরোহিতের মৃত্যুর কোনও বিজ্ঞান সম্মত কারণ রয়েছে। এর মধ্যে অবাক হওয়ার কিছু নেই। মৃতদেহ দাহ না করলে তা থেকে রোগ ছড়াতে পারে। খুব তাড়াতাড়ি মৃতদেহ সৎকার জরুরি। আমরা খোঁজখবর নিয়ে এলাকায় সচেতনতা তৈরি করার উদ্যোগ নেব।”


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES