• A
  • A
  • A
পশুপতিনাথ মন্দির বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন শিবমন্দির

বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন শিবমন্দির হল নেপালের পশুপতিনাথ মন্দির। এটি নেপালের সর্বশ্রেষ্ঠ অতি প্রাচীন জাগ্রত তীর্থক্ষেত্র হিসেবে পরিচিত। নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুর পূর্বদিকে বাগমতী নদীর তীরে পশুপতিনাথ মন্দির অবস্থিত। হিন্দুদের কাছে এই মন্দিরটির গুরুত্ব বহু প্রাচীনকাল থেকেই। এই মন্দির সম্পর্কে বহু পৌরাণিক কাহিনী রয়েছে।

পশুপতিনাথ মন্দির


প্রচলন রয়েছে, শিব ও পার্বতী একবার নেপালের বাগমতী নদীর তীরে ভ্রমণ করতে এসেছিলেন, যেটা মৃগস্থলি নামে পরিচিত। নদী তীরবর্তী উপত্যকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে হরিণের রূপ ধরে ওই এলাকায় ঘুরে বেড়াতে থাকেন দুজনে। অন্য দেবতারা তাঁকে ফিরে যাওয়ার কথা বললেও তিনি ফিরে যেতে চাইছিলেন না প্রথমে। পরে অনেক জোরাজুরিতে তিনি ফিরতে রাজি হয়ে যান। যাওয়ার আগে তিনি বলেন, যেহেতু মৃগরূপ ধারণ আমি এখানে বিচরণ করেছি। তাই ভবিষ্যতে এই ক্ষেত্র পশুপতি নামে বিশ্বসংসারে পরিচিত হবে। তারপর থেকেই এখানে শিবকে পশুপতিনাথ হিসেবে পুজো করা হয়।



এখানে আরেকটি বিষয় পূরাণ গবেষকরা বলেন, মহাভারতে বনবাসে থাকার সময় তৃতীয় পান্ডব অর্জুন দুর্গম অরণ্যে যান পশুপাত অস্ত্রের জন্যে। অর্জুনের তপস্যায় শিব নিজেকে আর স্থির রাখতে না পেরে দেখা দেন। পরে এই স্থানেই অর্জুনকে তাঁর পশুপাত অস্ত্র দান করেন।


এই মন্দির কবে প্রতিষ্ঠা হয়েছে, সে সম্পর্কে কোনও সঠিক তথ্য পাওয়া যায় না। নেপালের প্যাগোডা রীতিতে তৈরি এই পশুপতিনাথ মন্দিরটি চারকোণা। কাঠের কারুকার্য, কৌণিক গঠন নেপালের ঐতিহ্য ও স্থাপত্যের অন্যতম অংশ। মন্দিরটির দেওয়ালে সোনা ও রুপোর কারুকার্জ করা রয়েছে। মন্দিরের গর্ভগৃহে রয়েছে ৬ ফুট দীর্ঘ কালো পাথরের তৈরি শিবলিঙ্গ। শিবলিঙ্গে চারটি মুখ রয়েছে, সেগুলি হল বিষ্ণু, সূর্য, পার্বতী ও গণেশ। এছাডা়ও বিভিন্ন হিন্দু দেব-দেবীদের মূর্তি খোদাই করা আছে মন্দিরের দেওয়ালে। এছাড়া রামায়ণ, পূরাণের বিভিন্ন কাহিনিচিত্র এখানে খোদাই করা রয়েছে। মন্দিরের ছাদ তামার তৈরি। তার উপর সোনার প্রলেপ দেওয়া আছে। মন্দিরটির প্রধান দরজা চারটি। প্রতিটি দরজাই রুপো দিয়ে মোড়া। পশ্চিমের একটি দরজার সামনে একটি বিশাল ষাঁড়ের মূর্তি রাখা আছে। যার নাম নন্দী। মন্দিরে একশোটিরও বেশি শিবলিঙ্গ ও অন্য হিন্দু দেবদেবীর মূর্তি রয়েছে।

কীভাবে যাবেন : কলকাতা বিমানে নেপালের ত্রিভূবন এয়ারপোর্টে। ওখান থেকে ট্যাক্সি, গাড়ি বা বাসে করে যেতে পারেন পশুপতিনাথ মন্দির।

কোথায় থাকবেন : কাঠমাণ্ডুতে প্রচুর হোটেল ও লজ় রয়েছে সস্তায় থাকার জন্য।


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES