• A
  • A
  • A
উপত্যকার ক্যানভাসে সুন্দর শহর পহেলগাঁও

ভূস্বর্গ জম্মু ও কাশ্মীর, ছোটোবেলা থেকেই কথাটা শুনে আসছি। কিন্তু কেন যে এই ভূখণ্ডকে স্বর্গ বলা হয় তা চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। অপরূপ সৌন্দর্যে ভরপুর কাশ্মীর উপত্যকা বার বার দেখলেও ফুরোয় না। এই উপত্যকার এমনই একটি সুন্দর শহর পহেলগাঁও। নতুন জীবন শুরুর পথে কিছু কোয়ালিটি টাইম কাটাতে মধুচন্দ্রিমার প্ল্যানটা করতেই পারেন নদী আর পাহাড়ে ঘেরা এই শহরে।


জম্মু ও কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলায় অবস্থিত পহেলগাঁও। ভূপৃষ্ঠ থেকে ৭২০০ ফুট উঁচুতে। শহরের বুক দিয়ে বয়ে গেছে লিডার নদী। ঠিক যেন কোনও শিল্পীর ক্যানভাসে আঁকা ছবিতে সরু তুলির টান। কাশ্মীরের অন্যতম সুন্দর জায়গা পহেলগাঁও। চারদিকে সারি দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে পাইন গাছ। আর সেই পাইনের জঙ্গলের মাঝ দিয়ে উঁকি মারছে পাহাড়ের চূড়া। জমে থাকা সাদা বরফের স্তরে সূর্যের আলো পড়ে ছটা বের হয়। সেই ছটায় নিচ দিয়ে বয়ে যাওয়া লিডার নদী আরও রূপবতী হয়ে ওঠে। উপত্যকার এই সুন্দরী শহর বলিউডের পরিচালকদের বেশ পছন্দের জায়গা। অনেক হিট ছবির শুটিং হয়েছে এখানে। সানি দেওল-অমৃতা সিংয়ের বিখ্যাত ছবি বেতাবের শুটিং হয়েছিল পহেলগাঁওয়ের উত্তর-পূর্ব দিকের একটি ছোটো উপত্যকায়। তারপর ওই উপত্যকার নাম হয়ে গেছে বেতাব ভ্যালি। শহরের পপুলার টুরিস্ট ডেস্টিনেশনগুলির একটি এই বেতাব ভ্যালি।




প্রকৃতি এখানে যেন মন খুলে সেজে উঠেছে। তাই রূপও তার কম নয়। পহেলগাঁও থেকে ২৬ কিলেমিটার উত্তরে রয়েছে কোলাহই হিমবাহ। প্রায় ১৫,৪০০ ফুট উঁচুতে। এই হিমবাহ গলা জল বয়ে যায় লিডার নদীতে। আবার এই হিমবাহই ঝিলাম নদীর উপনদীগুলোর জলের উৎস। কোলাহই গ্লেসিয়ারে ট্রেকিং আপনার পহেলগাঁও ভ্রমণের একটা রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা হতে পারে। এছাড়া ট্রেকিং করা যেতে পারে চন্দনওয়ারিতে। জানুয়ারি, ফ্রেব্রুয়ারি মাসে বরফে ঢেকে গেলে চন্দনওয়ারির এই পাহাড়ের রাস্তায় স্লেজ গাড়ি চলে। তখন নদীর উপর তৈরি হয়ে যায় বরফের ব্রিজ। অন্য সময় অবশ্য এই ব্রিজ কিছুটা গলে যায়। তখন ব্রিজের নিচ দিয়ে নদী বয়ে যেতে দেখা যায়। চাইলে চন্দনওয়ারিতে পিকনিকও করতে পারেন। পহেলগাঁও থেকে ছোটো গাড়ি বা মিনিবাস ভাড়া করে চলে আসতে পারেন এই ডেস্টিনেশনে। এখানে আবহাওয়া নিজের মর্জি মতো বদলাতে থাকে। আপনি সফরে বেরোনোর সময় তেমন ঠান্ডা না পেলেও চন্দনওয়ারিতে এসে হাড় কাঁপানো শীতে ভুগতে হতে পারে। তবে তার জন্য চিন্তা নেই। এখানে মোটা শীতের জামাকাপড়, জুতো সব ভাড়া পাওয়া যায়। চন্দনওয়ারি থেকেই শ্রাবণ মাসে অমরনাথ যাত্রার শুরু হয়। কথায় বলে অমরনাথের এই রাস্তায় একবার পা দিলে ভাগবান তাঁর ভক্তকে ঠিক শেষ পর্যন্ত টেনে নিয়ে যান। অর্থাৎ অমরনাথ যাত্রার সুযোগ তার ভাগ্যে জুটেই যায়।



শহরের কেন্দ্রে রয়েছে ওয়াল্ডলাইফ রিজ়ার্ভ শিকারগড়। একবার ঢুঁ মেরে আসতে পারেন ওখানে। এখানকার ছোট্টো উপত্যকা আরু ভ্যালি। এখানেও করা যেতে পারে ট্রেকিং। ছোট্টো এই গ্রামটা ঘুরে দেখতে পারেন ঘোড়ার পিঠে চড়ে। অ্যাডভেঞ্চার চাইলে প্যারাগ্লাইডিং, স্কিং এসবের সুযোগ রয়েছে। পাহাড়ের উপর রয়েছে গল্ফকোর্ট। দেখে আসতে পারেন সেটাও। পহেলাগাঁও জুড়ে এমন অনেক সৌন্দর্য ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। যা শুধু শব্দে বোঝানো সম্ভব নয়। তাই এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে একবার ঘুরে আসুন পহেলগাঁও।




CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES