• A
  • A
  • A
রাজস্থান আজও মনের গভীরে

“উঠল বাই তো কটক যাই”, আমার ঘুরতে যাওয়ার বাতিক নিয়ে মা এমনটাই বলেন। তবে ভ্রমণপিপাসুদের কাছে বিষয়টা ঠিক এমনই। বেড়াতে ভালো লাগে। তাই অফিসের ৫টা-১০টার ছুটি জমিয়ে বছরে অন্তত একবার বেরিয়ে পড়ি। মনে আছে, সেবছর প্রথম চাকরি পেয়েছি। হাতে বেশকিছু টাকা জমিয়ে ঠিক করলাম রাজস্থান যাব।


সালটা ২০১৪। নভেম্বর মাসের শেষের দিকে ৭ দিনের জন্য রাজস্থান ঘুরতে গেলাম। নিজের চোখে না দেখলে বোধহয় কোনওদিন প্রকৃতির এত সুন্দর রূপ দেখতে পেতাম না। অনেককিছুই মিস হয়ে যেত। রাজাদের ভূমি রাজস্থান। মরুভূমি, সেখানকার সংস্কৃতি, বিশেষ করে জিভে জল আনা রাজস্থানী খাবার খেয়ে মুগ্ধ হয়েছিলাম।


রাজস্থান একসময় রাজপুত রাজাদের ঘাঁটি ছিল। জয়পুর, যোধপুর আর জয়সলমেরের মতো অসাধারণ সব ঠিকানা রয়েছে ঘুরে দেখার জন্য। ঘুরে দেখলাম একাধিক দুর্গ ও কেল্লা। সেগুলি যেন রাজস্থানের সৌন্দর্যকে দ্বিগুণ বাড়িয়ে তুলেছে।

তেমনই এক শহর জয়পুর। যাকে কি না বলা হয় “গোলাপী শহর”। হ্যাঁ, গোলাপীই বটে। বাড়ি-ঘর, দোকানপাট সবকিছুই যেন গোলাপী রঙে রাঙা। শহরের সৌন্দর্য চোখে না দেখলে হয়তো বিশ্বাস করতে পারতাম না, এত সুন্দর শহরও রয়েছে এদেশে। জয়পুরকে আবার সিটি অফ প্যালেসও বলা হয়। একসময় সেখানে রাজরাজাদের বাসস্থান ছিল। অতীতের সেইসব স্মৃতি নিয়ে আজও বেঁচে রয়েছে সিটি প্যালেস। সেখানে অবশ্য এখন জাদুঘর তৈরি করা হয়েছে। জয়পুরের অন্যতম আকর্ষণ হাওয়া মহল। চোখ কপালে উঠল হাওয়া মহলের অসাধারণ কারুকার্য দেখে। জয়পুর গেলে অন্তত একবার রাধাগোবিন্দ মন্দিরের দর্শন করা উচিত। যদিও ঠাকুর দেবতার প্রতি ততটা আগ্রহী না হলেও জায়গাটা বেশ ভালো লাগল। ঘুরে দেখলাম রাজা জয়সিংহ স্কোয়্যার, জয়পুর ন্যাশনাল মিউজিয়ামও। রাজস্থানের নানা সামগ্রীর পাশাপাশি লোভনীয় রাজস্থানি খাবার ভ্রমণের অভিজ্ঞতাকে উপভোগ্য করে তোলে।

রাজস্থানের অন্যতম আকর্ষণ যোধপুর। যাকে “ব্লু সিটি” বা “নীল শহর” বলা হয়। নীল চাষের জন্য তৈরি বাড়িগুলি দেখেই তার প্রমাণ পেলাম। রাজস্থানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর এটি। সেখানেই রয়েছে বিশাল “মেহরানগড় দুর্গ”। সুযোগ হাতছাড়া না করে বিশাল দুর্গটি ঘুরে দেখলাম। দুর্গটি দেখে মনে হল, যেন একাই পুরো শহরটাকে দখল করেছে। মহারাজাদের সময়কার তৈরি সেই দুর্গ দেখতে রোজই বহু মানুষ ভিড় করে। দুর্গের ভিতরে অসাধারণ কারুকার্যে রাজরাজাদের সময়কার আভিজাত্য ও ঐশ্বর্য্যের পরিচয় প্রকাশ পায়। রাজস্থান ঘুরতে গিয়ে মজার অভিজ্ঞতা হল জয়সলমের গিয়ে। উটের পিঠে চেপে মরুভূমি ঘোরার সে অভিজ্ঞতা চিরদিন মনে থাকবে। বিশেষ করে রাতের রাজস্থান অনেক বেশি রোমাঞ্চকর। আর খাওয়াদাওয়ার কথা তো বলতে বাকি রাখে না। আজও সেই খাবারের স্বাদ মুখে লেগে আছে। সময় পেলেই আবারও যেতে ইচ্ছে করে রাজাদের সেই দেশে।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  পুজোর খবর

  MAJOR CITIES