• A
  • A
  • A
প্রেমিকাকে ভিডিও কল করে আত্মহত্যা কিশোরের

বারুইপুর, ১২ জুলাই : হোয়াটসঅ্যাপে প্রেমিকার সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলতে বলতেই আত্মহত্যা করল এক কিশোর। মৃতের নাম সুরজ রায়(১৭)। বাড়ি বারুইপুর থানার সালেপুরে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে সুরজের প্রেমিকার নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পরিবার।

শুনুন মৃতের মায়ের বক্তব্য


স্থানীয় পদ্মপুকুর হাইস্কুলের ক্লাস ইলেভেনে পড়ত সুরজ। তার পরিবার জানিয়েছে, মাসখানেক ধরে একটি মেয়ের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। গতরাতে বাড়ি ফিরে সে প্রেমিকাকে ফোন করে। এরপর তাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ মোবাইল ফোন থেকে প্রেমিকাকে হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কল করে সুরজ। তারপর ভিডিও কল চলাকালীন গলায় দড়ির ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। ঘটনার পর সুরজের প্রেমিকা তার দিদিকে বিষয়টি জানায়। এরপর সুরজের বন্ধুদের ফোন করে ঘটনার কথা জানান দিদি। বন্ধুরা বাড়িতে এসে মা-বাবাকে ঘটনার কথা জানায়। এরপর ঘরের দরজা ভেঙে সুরজের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পাওয়া যায়। খবর পেয়ে বারুইপুর থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

আজ সকালে সুরজের প্রেমিকার বিরুদ্ধে বারুইপুর থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতের পরিবার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।


মৃতের মা বলেন, “রাতে ছেলেটা বাড়ি এসে ওর প্রেমিকার সঙ্গে কথা বলছিল। কথা বলার সময় খুব উত্তেজিত ছিল ও। গালিগালাজও করছিল। তারপর ঠিক কী হয়েছিল সেটা আমি জানি না। রাত ১১টা নাগাদ আমরা উপরের ঘরে শুতে চলে যাই। তারপরই ও গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। বন্ধুদের থেকে আমরা সেটা জানতে পারি। দরজা খুলে দেখি সিলিং থেকে ঝুলছে। মাসখানেক ধরে মেয়েটির সঙ্গে ওর সম্পর্ক ছিল। ওদের মধ্যে কাল ঠিক কী হয়েছিল তা আমি জানি না। হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কল করে আত্মহত্যা করে। আলমারির উপরে ফোনটা রেখেছিল। পরে সেটা দেখি। ওই মেয়েটির কারণেই আমার ছেলে মরে গেল। কিছু নিশ্চয় হয়েছে। যার জন্য একাজ করল আমার ছেলে।”



CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES