• A
  • A
  • A
গ্রেপ্তার BJP নেতা আনিসুর রহমান, পুলিশের সামনেই মারধর তৃণমূলের

মেদিনীপুর, ৮ জানুয়ারি : গ্রেপ্তার BJP নেতা আনিসুর রহমান। কিছুদিন আগেই তিনি তৃণমূল ছেড়ে BJP-তে যোগদান করেন। গতকাল গভীররাতে মেদিনীপুরের একটি নার্সিংহোম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। থানায় নিয়ে যাওয়ার পথে পুলিশের সামনেই তাঁর উপর আক্রমণ চালায় উপস্থিত তৃণমূলকর্মীরা।

তৃণমূলকর্মীদের হুমকি ও আনিসুরকে মারধরের দৃশ্য দেখুন ভিডিওয়


সূত্রের খবর, শ্রেয়া দাস নামে এক যুবতির সঙ্গে আনিসুরের প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল। পরে অবশ্য সেই সম্পর্ক ভেঙে যায়। শ্রেয়ার বাড়ি তমলুক থানা এলাকায়। কিছুদিন আগে সে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করে। পরিবারের তরফে মেদিনীপুরের একটি নার্সিংহোমে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে। শ্রেয়ার পরিবার প্রথমে মেদিনীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। পরে স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন তৃণমূল নেতারা। গতকাল নার্সিংহোমেও আসেন তাঁরা। ডাকা হয় আনিসুরকে। সন্ধ্যায় আনিসুর এলে তাঁকে ঘিরে ধরা হয়। খবর পেয়ে আসে পুলিশও। নার্সিংহোমের একটি রুমেই (৫৭১ নম্বর) আটকে রাখা হয় আনিসুরকে। সেখানেই বেশ কয়েকঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ চলে।


এই সংক্রান্ত আরও খবর : মমতার নির্দেশ অমান্য, ছ'বছরের জন্য সাসপেন্ড আনিসুর

এদিকে, দলীয় নেতা স্নেহাশিস ভৌমিকের (শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত) নেতৃত্বে নার্সিংহোম চত্বরে ভিড় জমাতে শুরু করেন স্থানীয় তৃণমূলকর্মীরা। রাতবিরেতে নার্সিংহোমে বন্দেমাতরম স্লোগানও তোলা হয়। আনিসুরকে কেন গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না সেই প্রশ্ন তুলে বিক্ষোভ দেখানো হয়। মেদিনীপুরের IC সুশান্ত রাজবংশীর বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তৃণমূলকর্মীরা। এক কর্মী বলেন, “আগে আমাকে দলীয় অফিস থেকে তুলে এনে মেরেছে। বড়বাবুর দম আছে এখন ? চামড়া ছাড়িয়ে দেব। অনেক অত্যাচার সহ্য করেছি। মেদিনীপুর শহরে কাজ করতে এলে তৃণমূলকে রেখে কাজ করতে হবে। অন্য কিছু বরদাস্ত করা যাবে না।” পরিস্থিতি সামাল দিতে নার্সিংহোমে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সচিন মক্কড়। তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয়। স্নেহাশিস ভৌমিক হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “আগের জমানার কথা ভুলে যান। এসব এই জমানায় চলবে না।” অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে গালিগালাজও করা হয়।

এই সংক্রান্ত আরও খবর : আনিসুরের সঙ্গে অতি ঘনিষ্ঠতা ? ক্লোজ় পাঁশকুড়ার OC

এরপর রাত ২টো নাগাদ আনিসুরকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। নার্সিংহোম থেকে বেরোনোর সময় আনিসুরের উপর চড়াও হয় তৃণমূলকর্মীরা। পুলিশের সামনেই চলে মারধর। কোনওক্রমে তাঁকে পুলিশভ্যানে তুলে পাঠানো হয়। আনিসুরের বিরুদ্ধে ঠিক কী কী অভিযোগ বা কোন ধারায় মামলা রয়েছে তা এখনও অস্পষ্ট।

এই সংক্রান্ত আরও খবর : অবশেষে ইস্তফা দিলেন পাঁশকুড়া পৌরসভার চেয়ারম্যান

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES