• A
  • A
  • A
সোশাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে ব্ল্যাকমেলে অভিযুক্ত দেওর, আত্মহত্যার চেষ্টা যুবতির

হাবড়া,৭ মার্চ : তাঁর পছন্দ নয়। তবুও বারবার সোশাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করেছে দেওর। ব্ল্যাকমেল করেছে নানাভাবে। যাতে অপমানিত বোধ করেছেন যুবতি। গতরাতে তাই বাঁ হাতের শিরা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি। হাসপাতালের বেড়ে শুয়ে একথা জানিয়েছেন যুবতি নিজে। গতকাল ঘটনাটি ঘটেছে হাবড়া থানার শ্রীনগর এলাকায়। অভিযুক্তের নাম দীপঙ্কর ঘোষ।

এই সেই যুবতি, ভিডিওয় তাঁর বক্তব্য শুনুন


কী হয়েছিল ?



ঘটনার সূত্রপাত মাস খানেক আগে। যুবতির মোবাইলের মেমোরি কার্ড হারিয়ে যায়। তারপর থেকে মাঝেমাঝেই ফেসবুকে যুবতির ছবি পোস্ট করা হত। ছবিগুলি হারিয়ে যাওয়া মেমোরি কার্ডে স্টোর করা ছিল। বাবু নামের এক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার হত ছবিগুলি। যুবতির সন্দেহ হয়, তাঁর দেওরই এই অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছে। প্রথম থেকেই দীপঙ্করের উপর সন্দেহ ছিল তাঁর। কিন্তু কেন ?

যুবতি বলেন, “আমি জানি আমার মেমোরি কার্ড হারিয়ে গেছে। তারপর দেখি আমার ছবি ফেসবুকে ছাড়া হচ্ছে। দীপুই (দীপঙ্কর) একাজ করছে। আমি নিষেধ করেছি। শোনেনি। বলে, থানা পুলিশ আমার কিছু করতে পারবে না। গতকালও তাই করেছিল। গতকালের ছবিটি প্রথমে আমি দেখিনি। আমার এক বন্ধু হোয়াটসঅ্যাপে সেই ছবি পাঠায়। এরপর আমি শাশুড়িকে বিষয়টি বলি। শাশুড়ি বলেন, ফোটো দিয়েছে তো কী হয়েছে ? এছাড়া আমাকে নানাভাবে ব্ল্যাকমেলও করত দেওর।”

কেন ব্ল্যাক মেল করা হত ? যুবতির কথায় তা স্পষ্ট হয়নি।

ওই যুবতির স্বামী বলেন, “আমি দোকানে ছিলাম। বাড়িতে এসে দেখি আমার স্ত্রী ভাঙা কাচের বোতল দিয়ে হাতের শিরা কেটেছে। কী হয়েছে আমি জানি না।”

আহত ওই যুবতিকে রাত ২টো নাগাদ হাবড়া স্টেট জেনেরাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দীপঙ্করের বিরুদ্ধে থানায় এখনও কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তার বউদির মুখ থেকে শোনা গেছে, এর আগে বেশ কয়েকবার পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে তাকে। পরিবারের লোকেরা গিয়ে ছাড়িয়ে নিয়ে এসেছে।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES