• A
  • A
  • A
“IC আমাকে রেপ করতে চেয়েছিল”, ফেসবুকে অভিযোগ বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতার মেয়ের

হরিরামপুর, ১১ মে : “হরিরামপুরের IC এবং অ্যাডিশনাল SP-এর নেতৃত্বে আমাদের উপর খুব অত্যাচার হয়েছে। IC আমাকে রেপ করতে চেয়েছিল গাড়ির মধ্যে ঢুকে।” ফেসবুক লাইভ করে পুলিশের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করলেন বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা শুভাশিস পালের মেয়ে। তাঁর অভিযোগ, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে এই অত্যাচার করিয়েছেন তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র। এবিষয়ে তৃণমূল নেতার বক্তব্য, এই অভিযোগ মিথ্যা এবং সাজানো।

ভিডিওয় শুনুন বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতার মেয়ের বক্তব্য


দক্ষিণ দিনাজপুরের বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা শুভাশিস পাল গত নির্বাচনে জেলা পরিষদের আসনে নির্বাচিত হয়ে পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ হয়েছিলেন। জেলা সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পেয়েছিলেন। শোনা যায়, তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্রর স্নেহধন্য হওয়ার কারণেই এই পদ পেয়েছিলেন শুভাশিস। কিন্তু পরের দিকে দু’জনের মধ্যে দূরত্ব বাড়তে থাকে। তারপরই সব পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় শুভাশিসকে। অন্যদিকে, শুভাশিস পাল ওরফে সোনা পাল এলাকায় প্রভাবশালী বলেই পরিচিত। রাজনৈতিক মহলের মত, শুভাশিসবাবুর প্রভাবশালী হওয়ার কারণেই বিধানসভায় হারতে হয়েছিল বিপ্লব মিত্রকে।


এবছর পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য হরিরামপুরের প্রার্থী তালিকা তৈরি করেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি। কিন্তু সেই তালিকায় আপত্তি জানান শুভাশিস। প্রার্থী তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে দুর্নীতি করেছেন বিপ্লব মিত্র, এই অভিযোগ তোলেন। এদিকে আবার, কুমারগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতিতে কংগ্রেসের হয়ে লড়ছেন শুভাশিসের মা ছবি পাল এবং বাগিচাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছেন শুভাশিসের দাদা গণেশ পাল ওরফে দেবাশিস পাল। মা ও ভাইয়ের হয়ে প্রচার করায় দিন কয়েক আগে শুভাশিসকে তৃণমূল থেকে বহিষ্কার করার কথা ঘোষণা করেন বিপ্লব মিত্র ও তৃণমূল নেত্রী অর্পিতা ঘোষ। তাঁদের অভিযোগ, তৃণমূলকে হারাতেই মা ও ভাইকে কংগ্রেসের প্রার্থী করেছেন শুভাশিস। এসব ঘটনার পরই গতরাতে শুভাশিস পালের বাড়িতে হামলা হয়। গভীর রাতে ফেসবুক লাইভ করে সেই হামলার কথা জানান শুভাশিসের মেয়ে।

ফেসবুকে লাইভে বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতার মেয়ে বলেন, “আমাদের ভুলটা কোথায়? আমার দিদা কংগ্রেসে দাঁড়িয়েছে, আমার জেঠু কংগ্রেসে দাঁড়িয়েছে। সেকারমে আমার উপর অত্যাচার হয়েছে। আমার বোনদের উপর অত্যাচার হয়েছে। হরিরামপুরে IC এবং অ্যাডিশনাল SP-এর নেতৃত্বে আমাদের উপর খুব অত্যাচার করা হয়েছে। IC আমাকে রেপ করতে চেয়েছিল গাড়ির মধ্যে ঢুকে। আমি কোনওমতে জানটা বাঁচিয়ে পালিয়ে এসেছি। আমার দিদা কংগ্রেস করেন এটাই কি আমাদের দোষ? ওরা আমার উপর খুব অত্যাচার করেছে। আমি চাইছি এখন আমি মরে যাই। কিন্তু আমার মরে গেলে তো চলবে না।” এই লাইভের পর মোবাইলের সুইচ অফ করে দেন। নিরাপত্তার জন্য শুভাশিস পালের বাড়ির বাইরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। SP-এর কাছে অভিযোগ করেছেন শুভাশিসের স্ত্রী সুচরিতা পাল।

এবিষয়ে বিপ্লব মিত্রর বক্তব্য, “নাটক চলছে। সম্পূর্ণ সাজানো ঘটনা। প্রচারে আসতে বহিষ্কৃত শুভাশিস পাল এইসব করে বেড়াচ্ছেন। এতে তৃণমূলের ভোট ব্যাঙ্কে কোনও প্রভাব পড়বে না।”

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES