• A
  • A
  • A
আমি ভেবে পাই না বিষাক্ত মদ খাওয়ার প্রয়োজনটা কোথায় : মমতা

কালনা, ৩০ নভেম্বর : "শান্তিপুরে বিষাক্ত মদ খেয়ে কয়েকজন মারা গেছে। আমি ভেবে পাই না বিষাক্ত মদ খাওয়ার প্রয়োজনটা কোথায়?" আজ কালনার অঘোরনাথ পার্ক স্টেডিয়ামে এক সরকারি পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঞ্চ থেকে ৯৭টি প্রকল্পের শিলান্যাস ও ৩৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি।

ভিডিয়োয় শুনুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য


আজকের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "শান্তিপুরে বিষাক্ত মদ খেয়ে কয়েকজন মারা গেছে। আমি ভেবে পাই না বিষাক্ত মদ খাওয়ার প্রয়োজনটা কোথায়? যারা খেয়েছেন বুঝে শুনে খাননি। আমি মনে করি এক্ষেত্রে একটু সামাজিক সচেতনতা বাড়াতে হবে। কিন্তু তাদের পরিবারের তো কোনও দোষ নেই। মৃতের পরিবারগুলিকে দু'লাখ টাকা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পুলিশ প্রশাসনে ও আবগারি বিভাগের কয়েকজন অফিসার আছেন যারা শুধু বসে বসে এই কাজগুলি করছেন। তাদের কিন্তু রাখা হয়েছে এই কাজগুলি দেখার জন্য। কয়লা মাফিয়া থেকে বালি মাফিয়া, স্মাগলিং সবকিছুই কড়াহাতে দমন করতে হবে।"


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেন, "আমি চাই না আপনি CPI(M) বা BJP করেন বলে আপনার চাকরি চলে যাক। কিন্তু আপনাদেরও কাজটা গুরুত্ব দিয়েই করতে হবে। মনে রাখতে হবে চাকরি করতে হলে জনগণের জন্য কাজ করতে হবে, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। ঘুম থেকে উঠে সারাদিন শুধু দিতে হবে দিতে হবে বলে বাংলাকে শেষ করা আপনাদের কাজ নয়। অনেক হয়েছে। অনেক দিয়েছি এবার কাজ করুন। সব কারখানা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। স্কুল কলেজগুলিকে রাজনৈতিক আখড়ায় পরিণত করে দিয়েছিলেন। হাসপাতালগুলি জীবন্ত যমালয়ে পরিণত হয়েছিল, রেশন দোকানে মানুষ চাল পেত না, শিক্ষকেরা ঠিক সময়ে বেতন পেতেন না। আজ এক তারিখে মানুষ পেনশন পেয়ে যায়, বেতন পেয়ে যান সবাই। আমরা অনেক সহযোগিতা করেছি। যেখানে ব্যাঙ্ক নেই সেখানে কো অপারেটিভ ব্যাঙ্ককে বলছি কৃষকদের বেশি করে ঋণ দেওয়ার জন্য।"

এরপরেই সিঙ্গুরের প্রসঙ্গ তুলে ধরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "কী আর বলব ওদের নিয়ে, যারা সিঙ্গুরের জমি খেয়ে নিয়েছিল, নন্দীগ্রাম দখল করতে গেছিল, মানুষ খুন করেছিল, রাঘব বোয়াল, বড় রাক্ষুসে তাদের আবার বড় বড় কথা। আমরা সিঙ্গুরের কৃষকদের জমি দেব বলেছিলাম, তা ফিরিয়ে দিয়েছি। যাদের বাকি আছে তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আজ আমি জীবন দিয়ে কাজ করি কারণ সারাজীবন আমি সংঘর্ষ করে এসেছি। পা থেকে মাথা পর্যন্ত মার খেতে খেতে আজ দাঁড়িয়ে আছি। তাই মানুষের ক্ষতি করে আমি কোনও কাজ করি না। আমার জীবনের লক্ষ্য মানুষকে দাঁড় করিয়ে দেওয়া।"

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES