• A
  • A
  • A
নাবালিকাকে ধর্ষণের ৪৬ দিনের মাথায় দোষীসাব্যস্তর মৃত্যুদণ্ড

সাগর (মধ্যপ্রদেশ), ৮ জুলাই : ৯ বছরের এক নাবালিকাকে ধর্ষণের ৪৬ দিনের মাথায় দোষীসাব্যস্তকে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ দিল মধ্যপ্রদেশের এক আদালত। ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে মধ্যপ্রদেশের রেহলি জেলার খামারিয়া গ্রামে। গতকাল এই রায় দেন অতিরিক্ত দায়রা বিচারকা সুধাংশু সাক্সেনা। দোষীসাব্যস্তর নাম ভগীরথ প্যাটেল(৪০)। এই রায়ের পর সাগরের SP সত্যেন্দ্র শুক্লা বলেন, "রাজ্য সরকারের পাশ করা নতুন আইনের পর সম্ভবত প্রথম কারও শিশু ধর্ষণের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সাজা হল।"

দোষীসাব্যস্ত ভগীরথ প্যাটেল


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ মে ঘটনাটি ঘটে। সেই দিন ভগীরথ ৯ বছরের ওই নাবালিকাকে প্রলোভন দেখিয়ে বাড়ির সামনে একটি মন্দিরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। তার চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন মন্দিরে পৌঁছে দেখেন অভিযুক্ত পালিয়ে যাচ্ছে। পুলিশ ১২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে মামলা রুজু করে। ২৫ জন প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ানের উপর ভিত্তি করে ও অন্যান্য প্রমাণের ভিত্তিতে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত শেষ হয়। ২৪ মে চার্জশিট ফাইল করা হয়। DNA রিপোর্ট ও মেডিকেল টেস্টের রিপোর্ট পুলিশ হাতে পায় ২ জুলাই।


মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, "এই রায় অপরাধীদের কড়া বার্তা দেবে। যারা শিশুদের ধর্ষণ করে তাদের ফাঁসি যাতে হয় সেই রকম আইনের জন্য আমাদের সরকার সবসময় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিল।" স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং বলেন, "এই মৃত্যুদণ্ডের রায় ঐতিহাসিক"।

গত বছর ডিসেম্বর মাসে মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা সর্বসম্মতিক্রমে একটি বিল পাশ করে। যাতে বলা হয়, ১২ বছর ও তার নিচে মেয়েদের ধর্ষণে প্রমাণিত ব্যক্তিকে মৃত্যদণ্ড দেওয়া হবে। রাষ্ট্রপতির অনুমতির পর অবশেষে ২১ এপ্রিল ওই বিল আইনে পরিণত হয়।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES