• A
  • A
  • A
“বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ীরা মিষ্টি খেয়েছিলেন, এবার কাঁচা করলা খাবেন”

জলপাইগুড়ি, ১০ মে : “বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে যাঁরা মিষ্টি খেয়েছিলেন, তাঁদের এবার কাঁচা করলা খেতে হবে। যাঁরা মিষ্টি খাইয়েছেন তাঁদের নাকখত দিতে হবে।” জলপাইগুড়ির কাঠেরব্রিজ এলাকার জনসভায় বললেন BJP রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

দিলীপ ঘোষের বক্তব্য


এই সংক্রান্ত আরও খবর : ১৪ মে পঞ্চায়েত ভোট, ১৭-য় গণনা


দিলীপবাবু বলেন, “ই মেলের মাধ্যমে প্রায় ৩৫০০ হাজার নমিনেশন হয়েছিল। হাইকোর্ট বলেছিল, সেটাও স্বীকৃতি দিতে হবে। ভোটে সামিল করতে হবে। সুপ্রিম কোর্ট তাতে স্থগিতাদেশ দিয়েছে। বলেছে, যে ৩৪ শতাংশ আসনের ফয়সালা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় হয়েছে তাও স্থগিত থাকল। ৬৬ শতাংশ আসনে নির্বাচন হতে পারে। আর ৩৪ শতাংশ আসনের বিষয়ে ৩ জুলাই আবার শুনানি হবে। সেদিন নিশ্চিত হবে সেগুলিতে ভোট হবে, নমিনেশন হবে নাকি ই-নমিনেশন হবে ? তার মানে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে গিয়ে বিরোধীদের মারধর করে যাঁরা ভেবেছিলেন জিতে গেলাম। মিষ্টি খাচ্ছিলেন হাঁড়ি হাঁড়ি, তাঁদের কিন্তু এবার কাঁচা করলা খেতে হবে। জিততে পারেননি।আবার ভোট হবে। এই বাজ-বাজনা, নাচা-গানা আবার ঠান্ডা হবে। আমরা ভোটে লড়ব। আর যাঁরা মিষ্টি খাইয়েছেন, তাঁদের নাকখত দিতে হবে।”

এই সংক্রান্ত আরও খবর : ১৪ মে ভোটে বাধা নেই, ই-মনোনয়নে স্থগিতাদেশ সুপ্রিম কোর্টের

নির্বাচন প্রসঙ্গে BJP রাজ্য সভাপতি বলেন, “পশ্চিমবঙ্গের ভোট একটা বিশেষ পরিস্থিতিতে হচ্ছে। ভোট এলেই এখানে ঝামেলা শুরু হয়। পুজো এলে মানুষ ভাবে খরচ হবে। টাকা পয়সা জোগাড় করতে হবে। আর এখানে ভোট এলেই সবাই ভাবে, ওরে বাবা ভোট দিতে পারব তো ? পশ্চিমবঙ্গের ভোট মানে আনন্দ নয়। একটা আশঙ্কা নিয়ে ভোট দিতে যাই আমরা। কী জানি কতগুলো লাশ পড়বে ! ভোট অনেক দূর। ইতিমধ্যে ২৫ জনের লাশ পড়ে গেছে।”


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES