• A
  • A
  • A
কেন শীতকালেই সবথেকে বেশি ভোগে বাচ্চারা ?

শীতকালে রোগ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। শীত শুরু হওয়ার সময় থেকেই তারা ভুগতে শুরু করে। আর একবার ঠান্ডা লাগলে সেটা যেন কোনওভাবেই ঠিক হয় না। শীত যতক্ষণ না শেষ হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত ঠান্ডা লেগেই থাকে। শত ওষুধ খেয়েও সর্দি কাশি যায় না। এই সময় সন্তানকে যতই শীতের জামা পরিয়ে রাখুন না কেন ঠান্ডা লাগার হাত থেকে তাদের কেউই রক্ষা করতে পারে না। ঠান্ডা ঠিক লেগেই যায়। বাচ্চার ৪ বছর বয়স হওয়া পর্যন্ত এই সমস্যা বেশি পরিমাণে দেখা যায়।


কিন্তু, শীতকালেই কেন তারা বেশি ভোগে ?


সাধারণত শীতকালে বড়দের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কমে যায়। সে কারণে ওই সময় জীবাণুর দ্বারা সবথেকে বেশি আক্রান্ত হয় তারা। এছাড়া সদ্যোজাতের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বয়সের বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ডেভেলপ করতে থাকে। ফলে জন্মের পর তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা খুব একটা থাকে না। তাই জীবাণুর দ্বারা এতবেশি আক্রান্ত হয় তারা।

কীভাবে এর প্রতিরোধ করা সম্ভব ?

বাইরের আবহাওয়ার সঙ্গে মানানসই জামা পরান বাচ্চাকে। আর ঘরে যদি গরম লাগে তাহলে বুঝে জামা খোলাবেন। হুট করে সব জামা খুলিয়ে দেবেন না।

বড়দের থেকে বাচ্চাদের শরীরে তাপ তাড়াতাড়ি নেমে যা। এর জন্য তাদের বেশি সুরক্ষার দরকার। না হলেই ঠান্ডা লাগার মতো সমস্যা দেখা যায়।

আবার অনেক সময় অতিরিক্ত জামা পরানোর ফলে ফুসকুড়ি বের হতে পারে। তাই সে সময় এমন জামা পরান যাতে বাচ্চার গায়ে ফুসকুড়ি না হয়।

ঘর গরম রাখার জন্য কয়লা জ্বালিয়ে গরম করবেন না। এতে কার্বোন মনোক্সাইডের পরিমাণ বেড়ে যায়।

মায়ের দুধ খাওয়া সবথেকে বেশি জরুরি। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

বাচ্চাকে ধরার আগে হাতে সাবান দিন।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES