• A
  • A
  • A
স্যুটকেশ থেকে উদ্ধার নাবালকের দেহ, গ্রেপ্তার IAS পরীক্ষার্থী

দিল্লি, ১৪ ফেব্রুয়ারি : এক মাস ধরে নিখোঁজ ছিল বছর সাতেকের এক নাবালক। অবশেষে খোঁজ মিলল। তবে জীবিত নয়। ভাড়িটিয়ার ঘর থেকে স্যুটকেশ বন্দী অবস্থায় উদ্ধার হল তার দেহ। উত্তর দিল্লির ভালাসওয়ার কাছে স্বরূপ নগর এলাকার ঘটনা। ধৃত ভাড়াটিয়ার নাম অভদেশ সাক্য (২৭)। সে IAS পরীক্ষার্থী ছিল।


মৃতের নাম আশিস। কয়েক মাস আগে তার বাবার সঙ্গে ঝামেলা হয় অভিযুক্ত যুবকের। তারই বদলা নিতে সাইকেল কিনে দেওয়ার নাম করে ৭ জানুয়ারি আশিসকে বাড়িতে ডেকে আনে অভদেশ। তারপর আটকে রেখে জিজ্ঞাসা করে তার নামে বাড়িতে কী আলোচনা হয়। সে জানায়, অভদেশের বাড়িতে আসতে মানা করা হয়েছে। কারণ, সে খারাপ। তখন রেগে গিয়ে নাবালককে শ্বাসরোধ করে খুন করে অভদেশ। এরপর ঘরেই বিছানার নিচে স্যুটকেশে ভরে রাখে দেহ। তার কিছুদিন পর নাবালকের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ হিসেবে ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা চাওয়ার ছক কষেছিল। চেষ্টা করেছিল দেহ সরিয়ে ফেলার। কিন্তু, ওই এলাকায় জোরদার পুলিশি পাহারা থাকায় তা পারেনি।


এদিকে নিখোঁজের দিনই থানায় অভিযোগ দায়ের করা আশিসের পরিবার। তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদের সময় সন্দেহ হয় অভদেশকে নিয়ে। সোমবার তার বাড়িতে আসে স্থানীয় থানার পুলিশ। ঘরে দুর্গন্ধের কারণ জিজ্ঞাসা করলে ইঁদুর মরার অজুহাত দেয়। এরপর ঘরে তল্লাশি চালিয়ে স্যুটকেশ থেকে আশিসের বিকৃত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের সময় ভেঙে পড়ে অভদেশ। খুনের কথা শিকার করে সে। গতকাল সকালে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  জনমত পঞ্চমত ২০১৮

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  MAJOR CITIES